NS

Ratings:


Qualification: Masters in Educational Psychology


Expert in: Adult and Adolescents Counseling


Specialized in: Counseling


Quote: Forgiveness doesn't change the past but it changes the future.


NS has answered total 13263 questions


Questions Answered

Avatar

প্রিয় গ্রাহক, আপনার প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ। আপনি নিজের ব্রিথিং এর দিকে মনোযোগ দিয়ে রাখেন। জার জন্য এটা জোরে জোরে হচ্ছে। কবে থেকে এমন হচ্ছে আপনার? কোন সময় বেশি হয়? বিস্তারিত ভাবে জানাবেন কী? তাহলে আপনাকে ভালো ভাবে সহায়তা করতে পারবো। রয়েছে পাশে সবসময়, মায়া।

See More

25 Sep 2021

Avatar

প্রিয় গ্রাহক, আপনার প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ। আমি অনুভব করতে পারছি আপনার কষ্টের জায়গাটা। আসলেই এটা মেনে নেয়া কষ্টকর। আপনার স্ত্রীর পরিবার বিয়ে মেনে নিচ্ছে না , যোগাযোগ ও করতে দিচ্ছেনা। এমন কেউ কি আছেন যিনি আপনাকে এই বিষয়ে সহায়তা করতে পারে। আপনার পরিবার থেকে o সহায়তা নিতে পারেন। আশা করি আপনাকে...

See More

25 Sep 2021

আসসালামু আলাইকুম। বিগত 4 মাস ধরে একটা দুশ্চিন্তায় ভুগছি। আমার কাজিনের সাথে এই বছরের জুন পর্যন্ত আমাদের একটা গভীর সম্পর্ক ছিল। আমাদের এতো ভালো সম্পর্ক ছিল যা দেখে তার আব্বু আম্মু সবাই রাজি ছিলেন যে আমাদের বিয়ে দিয়ে দেবে। যার সাথে সম্পর্ক ছিল সেও রাজি ছিল। হঠাৎ পড়ালেখার চাপে বাড়ি থেকে চলে আসি। একটা ফার্মেসির ছেলের সাথে ওর হোয়াটসঅ্যাপে কথা বলা শুরু যার ফলে ওদের একটা সম্পর্ক হয়ে যায়। এর পর থেকে আমার সাথে কথা বলতে বিরক্ত বোধ করতো। গত মাসে তাদের এই সম্পর্ক টা জানতে পারলে ওকে আমরা সবাই শাসন করি। যার ফলে ওই ছেলের সাথে এখন আর কোনো সম্পর্ক নাই। আর ওই ছেলেটা অনেক মেয়ের সাথেই আগে এরকম করেছিল। বর্তমানে ওর সাথে আমার যেন আগের মতো ভালো সম্পর্ক হয় সেই জন্য ওর পরিবারের সবাই ওকে বুঝাচ্ছে। কিন্তু সে রাজি হচ্ছে না। কিন্তু এই কয়েক মাসেও আগেও আমাদের ভালো সম্পর্ক ছিল। তার পরিবারের সবাই চাচ্ছে আমার সাথেই ওর বিয়ে হউক। কিন্তু সে কারোর কথাই শুনতে রাজি না। বলাবাহুল্য ওর বয়স একটু বেশিই কম। এমতাবস্তায় আমার সেমিস্টার পরীক্ষা সামনে কিন্তু আমি পড়ালেখায় মনোযোগ দিতে পারছি না। কি করলে আমাদের সম্পর্কটা আগের মতো হবে তার সমাধান দিয়ে একটু হেল্প করলে উপকৃত হতাম।
Avatar

প্রিয় গ্রাহক, আপনার প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ।আমি অনুভব করতে পারছি আপনার অবস্থাটা। আপনি মেয়েটিকে ভালোবাসেন। তবে সে সম্পর্ক টা আগের মত করতে চাচ্ছে না। মেয়েটি কি চাচ্ছে সেটা জানেন কি? তাকে কিছুটা সময় দিতে পারেন ভাবার জন্য। মেয়েটির মতামতের o সম্মান করা প্রয়োজন। আসলে ভালোবাসা ত জোর করে সম্ভব না । তাই...

See More

24 Sep 2021

আমার সাথে একটা মেয়ের সম্পর্ক ছিলো। বিস্তারিত বলা তো আর সম্ভব নয়,আমি শর্টকাটে বলি। আমরা রিলেশনে আসার অনেক আগে থেকে আমি ওকে অনেক লাইক করতাম। পরে আস্তে আস্তে ফ্রেন্ডশিপ হয়। ২০১৮ সেপ্টেম্বর থেকে আমরা একসাথে পড়া শুরু করি তখন থেকে ওকে ভালো লাগতো অনেক। কিন্তু কথা বলার সাহস পেতাম না। এরপর ৬ ফেব্রুয়ারী ২০১৯ এ ওর সাথে ফেসবুকে কথা হয়। আস্তে আস্তে ভালো বন্ধুত্ব হলেও সামনা সামনি কেউ কারো সাথে কথা বলার সুযোগ পাইনি। আমাদের ফ্রেন্ডশিপও ছিলো বলতে গেলে সবার থেকে আলাদা। অনেক রাত পার করে দিতাম কথা বলতে বলতে। আমার কোনো মেয়ে বন্ধু ছিলো না, ঠিক তেমনি ওরো কোনো ছেলে বন্ধু ছিলো না। হাসি মজা সহ কিভাবে কিভাবে যেনো অনেক রাত পার হয়ে যেতো কথা বলতে বলতে। কিন্তু তা শুধু মেসেজেই সীমাবদ্ধ ছিলো। আর এভাবে চলতে চলতে ১০ ফেব্রুয়ারী ২০২০ আমরা রিলেশনে আসি। এরপর ২৫ ফেব্রুয়ারি আমরা প্রথমবারের মতো একজন আরেকজনের সাথে কথা বলি আর মিট করি। এরপর এইচএসসি পরীক্ষার আগে ইচ্ছে ছিলো আরেকবার মিট করার কিন্তু করোনার কারনে আর সম্ভব হয়নি৷ আমাদের ফোনেও কথা হতো না। এমনকি শুরুর দিন থেকে নিয়ে রিলেশনে আসার পরেও সারাদিন গিয়ে শুধু রাতেই কথা হতো। এরপর যদিও এপ্রিল ২০২০ থেকে বিকেলেও কথা বলা শুরু করি। ওর নিজের ফোন ছিলো না আর ওর আম্মুর অনেক আগের ফেসবুক আইডি ইউজ করতো। তাই এমনটা হতো। আজকালকার মেয়েদের থেকে পুরো আলাদা ছিলো যার কারনে এত্তো ভালো লাগতো ওকে। যাইহোক সে চাইতো না এইচএসসি পরীক্ষার আগে ফেমিলি জানুক এইসব। আমিও ওকে বুঝতাম তাই কিছু বলতাম না। সে অনেক ভালো আর বলতে গেলে বড়লোক ফেমিলির মেয়ে। আর আমরা কেউই এমন নই যে মিথ্যা বলে বাসা থেকে বের হবো। ওকে দেখার ইচ্ছে হলেও অন্যসব ছেলেদের মতো ওর জন্য রাস্তায় দাড়িয়েও থাকতাম না। কোচিং এ আগে গিয়ে বসে থাকতাম আর ও আসলে এক পলক দেখতাম এতুটুকই। মানে আমাদের মধ্যে এইসব ওর ফ্রেন্ডস রাও বুঝতে পারতো না। যদিও ওর এক ফ্রেন্ডের কারনে সবাই জানতো আমি ওকে লাইক করি। তো এক কথায় বলতে গেলে আমাদের সম্পর্ক অন্য সবার থেকে আলাদা হলেও এইসব নিয়ে আমি ভাবতাম না। কারন আমি ওকে অনেক বেশি ভালো বাসতাম। সে আমাকে সবসময় অনেক আশা দিতো যে যাই হোক না কেন আমার সাথেই থাকবে। কত্ত রাত পার হয়ে যেতো এই নিয়ে ডিসকাস করতে করতে যে কিভাবে রাজি করানো যায়। আমি ওকে অনেক বিশ্বাস করতাম। আমরা সেইম এইজ এটা বড় সমস্যা কিন্তু আমি যাকে চাই সে যদি ঠিক থাকে তাহলেই সব ঠিক। অসম্ভবের কিছুই নেই। আর সে আমাকে সব টুকু আশা ভরসা দিয়ে গেছে একবারে শুরু থেকেই। তো অক্টোবর ২০২০ এই ফেমিলি জানতে পারে। ফেমিলি জানার পরেও সে আমার সাথে ২-৩ দিন ১ ঘন্টার মতো কিছু সময় কথা বলে এবং আবারো সেই আগের মতো আশা ভরসা দেয়। ওর ফেমিলিকে রাজি করাবে এই সেই সবটুকু আশা দেয়। কথা ছিলো আমার আম্মু আন্টির সাথে দেখা করবে। উনারা ওর জন্য অপেক্ষায় ছিলো আর আমিও অনেক খুশি হয়েছিলাম কারন সেই ১৩ মার্চ ওকে শুধু এক পলক দেখে ছিলাম। ওর জন্য অনেক চকলেট কিনলেও আর দেয়া হয় নি। যাইহোক তো এরপর অক্টোবর ১৩ তারিখ আমার জন্মদিনে সে আমাকে লাস্ট মেসেজ দেয় এবং সেটাতে বলে যে, কালকে কথা হবে। কিন্তু এর পর থেকেই সে অনলাইন আসা বাদ দিয়ে দেয়, ফোন অফ করে রাখে। অনেক চেস্টা করেও ওর সাথে আর কন্টাক্ট করতে পারিনি। ওর বেস্ট ফ্রেন্ড রিলেশনের পরে এই বেপারে জানতো। না পেরে ওই মেয়েকে মেসেজ করলেও সে আমার সাথে বাজে বিহেভ করে এবং হেল্প করতে পারে না। এরপর ওর কাজিনকে ফেসবুকে নক দিলে সেও হেল্প করতে পারে না। মানে আর কোনো ভাবেই কন্টাক্ট করতে পারছিলাম না তার সাথে। ওইদিন গুলো আমার লাইফে সবচেয়ে বাজে দিন ছিল। এর কয়দিন পর ওর বড় বোন আমাকে ফোন দিয়ে বলে ওর সাথে যেনো আর কন্টাক্ট না করি। ১ ঘন্টার বেশি আমাদের কথা হয়। আমি নিজের সবটুকু দিয়ে বুঝাই তাকে যে আমি ওকে অনেক ভালোবাসি। অনেক চাই। কিন্তু কোনো কাজ হয়নি। সে যে আমার সাথে ইচ্ছে করে কন্টাক্ট অফ করেছে তা আমরা বুঝতে পারছিলাম। যদিও আম্মু আমাকে বুঝাতো সেটা আর আমি শুরুতে মানতে রাজি ছিলাম না কিন্তু পরে আস্তে আস্তে বুঝতে পারি কিছু কারন উপলব্ধি করে। আসলে শর্টকাটেও এইসব বলা সম্ভব নয়। আমি মাত্র কিছু কিছু কথাই তুলে ধরলাম। একটা মানুষকে দূর থেকে যতোটা ভালো বাসা যায় আমি বাসি ওকে। আমাদের রিলেশন হয়তো আজকাল কার রিলেশনের মতো ছিলো না কিন্তু ওর প্রতি আমার ভালোবাসা অনেক বেশি। সারাদিন কিছু সময় কথা বলা, মন চাইলেও ফোনে কথা বলতে না পারা, ইচ্ছে করলেও ওকে দেখতে না পারা বেপার গুলো ভুলে যেতাম শুধু ওকে সারাজীবন পাওয়ার আশায়। সামনা সামনি তো দূরের কথা ওকে ফোনেও ভালোবাসি বলার সুযোগ পাইনি। ওর থেকে দুইবার শুনেছি। কিন্তু সে মুখে বললেও প্রমান করতে পারেনি। অনেক আশা দিলেও সব কিছু মিথ্যা প্রমান করে গেলো। ভাবতে সত্যিই অবাক লাগে, যে মানুষটি এত্তো ভাবতো আমাদের ফিউচার নিয়ে, এত্ত স্বপ্ন দেখিয়েছে সেই মানুষটি কীভাবে এমনটা করতে পারলো.! সেই ২০১৮ সেপ্টেম্বর থেকে অনেক ধৈর্যের পর আস্তে আস্তে নিজের সবটুকু দিয়ে ওকে পেয়েছি। কিন্তু শেষে যখন ওর কথা রাখার সময় হয়েছে তখন বেইমানি করেছে। গত ৪ আগস্ট ওর জন্মদিন ছিলো আর আমি ওর বাসায় কিছু পাঠাই যা সেই জানুয়ারি থেকেই রেডি করে আসছিলাম। আমার কিছু কথা আছে যেগুলো ওকে বলতে চাই। কিছু কথা যা সে জানেনা। অনেক অনেক কথা যেগুলো টাইপিং করে প্রিন্ট করে পাঠিয়েছি। সাথে ওর কিছু মেসেজ সহ অনেক কিছু। কিন্তু এর মধ্যে এমন কোনো কথা বলিনি যেনো যেনো সে কস্ট পায়। কোনো গালিগালাজ বা কোনো খারাপ কিছু বলিনি। তো এরপর দিন আমার এক ফ্রেন্ডকে সে ফোন দিয়ে আমার সাথে দেখা করার কথা বলে। আমার ফ্রেন্ড জানে অনেক আগে থেকেই যে আমি ওকে অনেক ভালোবাসি। ইভেন সে অনেক হেল্প করেছে এই বেপারে। যাইহোক আমার ফ্রেন্ড ওইদিন ফোনে আমাকে বিস্তারিত না বলে ইন্ডাইরেক্টলি বুঝিয়েছে যে, ওই মেয়ে ওকে ফোন করেছে। হয়তো সব আগের মতো হতো পারে। ওই মেয়ে যা করেছে তা ইচ্ছে করে করেনি। কিছু ভুল ছিলো। আমরা যেনো মিট করি। (মানে বিস্তারিত না বলার কারনে আমার ফ্রেন্ডের কথা গুলো অস্পষ্ট ছিলো। কিছু কথা আমি শুধু ধারনা করে নিয়েছি) যাইহোক অনেক রিকুয়েষ্ট করার পরও শুধু ওইদিন গুলোর কথা মনে পড়ে আমি মানা করে দেই। কারন ওইদিন গুলো ভুলার মতো নয়। এমন কোনো রাত যায়নি যেই রাতে আমি কান্না না করেছি। আমার এখনো ওইদিন গুলোর কথা মনে করলে অনেক কষ্ট লাগে আর ওর প্রতি অনেক ঘৃনা আসে। কিন্তু অনেক বেশি ভালোবাসি আর অন্যসব মেয়েদের দিকে তাকালে যেনো ওর কথা মনে পড়ে আর জীবনে এই ভুল না করি তাই ওকে ভুলতে চাই না আমি। সে আমার লাইফ থেকে এমন ভাবে যাওয়ার পর নিজের ফিউচার নিয়ে আর সিরিয়াস হতে পারছি না। সে আমার ফার্স্ট। আমি চাই সেই আমার লাস্ট হোক। আমি পারবো না ওর জায়গায় অন্য কাউকে বসাতে। তো যেটা বলছিলাম, আমার ফ্রেন্ডের কথা না রাখার কারনে সে অনেক রাগ হয় আমার উপর। আর ওইদিন ফোনে কথা শেষ হওয়ার পর থেকে আমার সাথে আগের মতো যোগাযোগ রাখে না। ওদের কি কথা হয়েছিলো ওইদিন এই বেপারে ওর থেকে আর কিছুই জানতে পারিনি। যাইহোক সব শেষে আপনার কাছে আমার দুইটা প্রশ্ন, ১) ওই মেয়ে আমার সাথে যে কাজ টা করেছে সেটা কি ঠিক করেছে.? ২) আমার ফ্রেন্ড অনেক রিকুয়েষ্ট করার পরও আমি রাজি হয়নি মিট করার জন্য। সেটা কি আমার উচিৎ ছিলো.?
Avatar

গ্রাহক, আপনার এই প্রশ্নের উত্তর দেয়া হয়েছে 

See More

26 Sep 2021

Avatar

প্রিয় গ্রাহক, আপনার প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ। আমি অনুভব করতে পারছি আপনার কষ্টের জায়গাটা। আপনার মা আপনাকে সাপোর্ট দেয়না। এটা আসলেই কষ্টকর। কি কারনে এবং কবে থেকে এমন করছেন তিনি? আপনার পরিবারে এমন কেউ কি আছেন যিনি আপনাকে সহায়তা করতে পারেন। তাকে আপনার কষ্টটা বলতে পারেন। এছাড়া আপনার জীবন অনেক মূল্যবান...

See More

24 Sep 2021

Avatar

প্রিয় গ্রাহক, আপনার প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ। আমি অনুভব করতে পারছি আপনার অবস্থাটা। আপনি আরেকটি সম্পর্কে জড়িয়েছেন । আপনি একটু সময় নিয়ে ভেবে দেখতে পারেন কি চাচ্ছেন। এভাবে আপনার স্ত্রীর জন্য অপেক্ষা করবেন কিনা। কোন সম্পর্কটি আপনার জন্য prioriti পাচ্ছে। আশা করি আপনাকে সাহায্য করতে পেরেছি। আর কোন প...

See More

24 Sep 2021

প্রশ্ন করুন আপনিও